1. ১৯৪০ সালের ২৩ মার্চ অবিভক্ত পাঞ্জাবের রাজধানী লাহোরে মুসলিম লীগের অধিবেশন বসে। এ অধিবেশনে অবিভক্ত বাংলার মুখ্যমন্ত্রী শেরে বাংলা এ.কে. ফজলুল হক ( বাংলার বাঘ নামে খ্যাত) লাহোর প্রস্তাব উত্থাপন করেন। এর মূল বিষয় ছিল মুসলমানদের অধিকার ও স্বায়ত্তশাসন প্রতিষ্ঠা করা।

    ১৯৪০ সালের ২৩ মার্চ অবিভক্ত পাঞ্জাবের রাজধানী লাহোরে মুসলিম লীগের অধিবেশন বসে। এ অধিবেশনে অবিভক্ত বাংলার মুখ্যমন্ত্রী শেরে বাংলা এ.কে. ফজলুল হক ( বাংলার বাঘ নামে খ্যাত) লাহোর প্রস্তাব উত্থাপন করেন। এর মূল বিষয় ছিল মুসলমানদের অধিকার ও স্বায়ত্তশাসন প্রতিষ্ঠা করা।

    See less
    • 0
  2. আমরা জানি সব বস্তুর আয়তন আছে। তার মানে বস্তুটি কিছুটা জায়গা দখল করে। কোনও বস্তুকে পানিতে ছেড়ে দিলে সে তার আয়তনের সমান পানি সরিয়ে দিয়ে নিজে সেই জায়গা দখল করে। যে পরিমাণ পানি সে সরিয়ে দেয়, সে পরিমাণ পানির ভর বস্তুটির ভরের চেয়ে বেশি হয় তবে বস্তুটি ভাসবে। কিন্তু সরিয়ে দেওয়া পানির ভর যদি বস্তুটির ভরের চেRead more

    আমরা জানি সব বস্তুর আয়তন আছে। তার মানে বস্তুটি কিছুটা জায়গা দখল করে।
    কোনও বস্তুকে পানিতে ছেড়ে দিলে সে তার আয়তনের সমান পানি সরিয়ে দিয়ে নিজে সেই জায়গা দখল করে।

    যে পরিমাণ পানি সে সরিয়ে দেয়, সে পরিমাণ পানির ভর বস্তুটির ভরের চেয়ে বেশি হয় তবে বস্তুটি ভাসবে। কিন্তু সরিয়ে দেওয়া পানির ভর যদি বস্তুটির ভরের চেয়ে কম হয় তাহলে বস্তুটি ডুবে যাবে।

    এক টুকরো লেহা যে পরিমাণ পানি সরিয়ে দেয় সেই পানির ভর লোহার টুকরোটির চেয়ে কম। তাই লোহার টুকরো পানিতে ডুবে যায়।
    যেহেতু,
    পানির ঘনত্ব প্রতি ঘন মিটারে ১০০০ কেজি
    লোহার ঘনত্ব প্রতি ঘন মিটারে ৭৯০০ কেজি
    তাই লোহা পানিতে ডুবে যায়।
    অপর দিকে, পারদের ঘনত্ব প্রতি ঘন মিটারে ১৩৫০০ কেজি
    তাই লোহা পারদে ভেসে থাকে।

    See less
    • 0
  3. This answer was edited.

    প্রোগ্রাম বা সফটওয়্যার হলো কম্পিউটারের প্রাণ। প্রোগ্রাম একটি কম্পিউটারকে তার কার্যক্রমের দিক- নির্দেশনা দিয়ে থাকে।          সমস্যা সমাধান বা কোন বিশেষ কার্য সম্পাদনের উদ্দেশ্যে কম্পিউটার প্রোগ্রামের ভাষায় ধারাবাহিকভাবে সাজানো নির্দেশমালাই প্রোগ্রাম।

    প্রোগ্রাম বা সফটওয়্যার হলো কম্পিউটারের প্রাণ। প্রোগ্রাম একটি কম্পিউটারকে তার কার্যক্রমের দিক- নির্দেশনা দিয়ে থাকে।         

    সমস্যা সমাধান বা কোন বিশেষ কার্য সম্পাদনের উদ্দেশ্যে কম্পিউটার প্রোগ্রামের ভাষায় ধারাবাহিকভাবে সাজানো নির্দেশমালাই প্রোগ্রাম।

    See less
    • 0
  4. বিস্তৃত ভৌগোলিক এলাকায় অবস্থিত একাধিক WLAN ও WMAN কে নিয়ে Wireless WAN গড়ে ওঠে। Wireless WAN এ বিশেষ ডিভাইস ও টেকনোলজির  সাথে ইন্টারনেট সংযোগের মাধ্যমে তথ্য আদান প্রদানের কাজ সম্পন্ন করা যায়।

    বিস্তৃত ভৌগোলিক এলাকায় অবস্থিত একাধিক WLAN ও WMAN কে নিয়ে Wireless WAN গড়ে ওঠে।

    Wireless WAN এ বিশেষ ডিভাইস ও টেকনোলজির  সাথে ইন্টারনেট সংযোগের মাধ্যমে তথ্য আদান প্রদানের কাজ সম্পন্ন করা যায়।

    See less
    • 0
  5. শহরের রাস্তায় ট্রাফিক লাইট যে ক্রম অনুসারে জ্বলে তা হলো—– লাল > হলুদ >সবুজ > হলুদ > লাল রাস্তার মোড়ে মোড়ে ট্রাফিক বাতির সংকেত। লাল বাতি জ্বলতে দেখে গাড়িগুলো থামে। হলুদ বাতি দেখলে অপেক্ষা করে। আল জ্বলন্ত সবুজ বাতি দেখে অবাধে এগিয়ে চলে।লাল আলোর তরঙ্গদৈর্ঘ্য সবচেয়ে বেশি।  তাই এটা অনেক দূর থেকেও দেখা যাRead more

    শহরের রাস্তায় ট্রাফিক লাইট যে ক্রম অনুসারে জ্বলে তা হলো—–

    লাল > হলুদ >সবুজ > হলুদ > লাল

    রাস্তার মোড়ে মোড়ে ট্রাফিক বাতির সংকেত। লাল বাতি জ্বলতে দেখে গাড়িগুলো থামে। হলুদ বাতি দেখলে অপেক্ষা করে। আল জ্বলন্ত সবুজ বাতি দেখে অবাধে এগিয়ে চলে।লাল আলোর তরঙ্গদৈর্ঘ্য সবচেয়ে বেশি।

     তাই এটা অনেক দূর থেকেও দেখা যায়। সেই বিবেচনায় লাল অন্যান্য রঙের তুলনায় এগিয়ে। হলুদ রঙের আলোর তরঙ্গদৈর্ঘ্য লালের চেয়ে কিছুটা কম, তবে সবুজের মতো এতটা কম নয়, সে কারণেই এটি বেছে নেওয়া হয়েছে।

    See less
    • 0
  6. পাট উৎপাদনের পর থেকে পচনের আগ পর্যন্ত একে কাঁচা পাট নামে অভিহিত করা হয়। বাংলাদেশে উৎপাদিত পাটের ৪০% কাঁচা পাট এবং ৫০% তৈরী পণ্য হিসাবে রফতানী করা হয়। একটি কাঁচা পাটের গাঁইটের ওজন ৪.৫ মণ.

    পাট উৎপাদনের পর থেকে পচনের আগ পর্যন্ত একে কাঁচা পাট নামে অভিহিত করা হয়।

    বাংলাদেশে উৎপাদিত পাটের ৪০% কাঁচা পাট এবং ৫০% তৈরী পণ্য হিসাবে রফতানী করা হয়। একটি কাঁচা পাটের গাঁইটের ওজন ৪.৫ মণ.

    See less
    • 1
  7. সংশোধনের পর প্রোগ্রাম ঠিকমতো কাজ করলে এবং তা ভবিষ্যতে ব্যবহারের জন্য সংরক্ষণ করে রাখতে হয়। এই সংরক্ষণ করাকে প্রোগ্রাম ডকুমেন্টশন বলে। প্রোগ্রাম ডকুমেন্টশন প্রোগ্রামারের জন্য তার কাজের একটি লিখিত দলিল।

    সংশোধনের পর প্রোগ্রাম ঠিকমতো কাজ করলে এবং তা ভবিষ্যতে ব্যবহারের জন্য সংরক্ষণ করে রাখতে হয়। এই সংরক্ষণ করাকে প্রোগ্রাম ডকুমেন্টশন বলে।

    প্রোগ্রাম ডকুমেন্টশন প্রোগ্রামারের জন্য তার কাজের একটি লিখিত দলিল।

    See less
    • 2
  8. ভুল সংশোধনের পর প্রোগ্রাম ঠিকমতো কাজ করলে এবং তা ভবিষ্যতে ব্যবহারের জন্য সংরক্ষণ করে রাখতে হয়। এই সংরক্ষণ করাকে প্রোগ্রাম ডকুমেন্টশন বলে। প্রোগ্রাম ডকুমেন্টশন প্রোগ্রামারের জন্য তার কাজের একটি লিখিত দলিল।

    ভুল সংশোধনের পর প্রোগ্রাম ঠিকমতো কাজ করলে এবং তা ভবিষ্যতে ব্যবহারের জন্য সংরক্ষণ করে রাখতে হয়। এই সংরক্ষণ করাকে প্রোগ্রাম ডকুমেন্টশন বলে।

    প্রোগ্রাম ডকুমেন্টশন প্রোগ্রামারের জন্য তার কাজের একটি লিখিত দলিল।

    See less
    • -1
  9. কম্পিউটার দিয়ে আরো বেশি কাজ করানোর জন্য মধ্যম স্তরের ভাষার উদ্ভব হয়। এই ভাষার সাহায্যে নিয়ন্ত্রণ ও সিস্টেম প্রোগ্রাম রচনা করা যায়। মধ্যম স্তরের ভাষা হল এক ধরনের প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ যা যেকোনো ধরনের কম্পিউটারে নির্বাহ করা সম্ভব। যেমন - C, FORTRAN, PASCAL ইত্যাদি।  1960 সালের দিকে এ ভাষার উদ্ভRead more

    কম্পিউটার দিয়ে আরো বেশি কাজ করানোর জন্য মধ্যম স্তরের ভাষার উদ্ভব হয়। এই ভাষার সাহায্যে নিয়ন্ত্রণ ও সিস্টেম প্রোগ্রাম রচনা করা যায়।

    মধ্যম স্তরের ভাষা হল এক ধরনের প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ যা যেকোনো ধরনের কম্পিউটারে নির্বাহ করা সম্ভব।

    যেমন – C, FORTRAN, PASCAL ইত্যাদি।  1960 সালের দিকে এ ভাষার উদ্ভব হয়। নিম্নস্তরের ভাষা প্রোগ্রামারদের বোঝা কঠিন ছিল বলে মধ্যম স্তরের ভাষায ব্যবহৃত হয়।

    See less
    • 0
  10. অ্যাডার হচ্ছে এমন একটি সমবায় সার্কিট (Combination Circuit), যা বাইনারি সংখ্যার যোগের কাজ করে। অর্থাৎ, যে সমবায় সার্কিট দ্বারা যোগের কাজ সম্পন্ন হয় তাকে অ্যাডার বা যোগের বর্তনী বলে। কম্পিউটারের সকল গাণিতিক কাজ বাইনারি যোগের মাধ্যমে সম্পন্ন হয়। অ্যাডার ২ প্রকার। যথাঃ অর্ধ যোগের বর্তনী (Half Adder) পূরRead more

    অ্যাডার হচ্ছে এমন একটি সমবায় সার্কিট (Combination Circuit), যা বাইনারি সংখ্যার যোগের কাজ করে।

    অর্থাৎ, যে সমবায় সার্কিট দ্বারা যোগের কাজ সম্পন্ন হয় তাকে অ্যাডার বা যোগের বর্তনী বলে।

    কম্পিউটারের সকল গাণিতিক কাজ বাইনারি যোগের মাধ্যমে সম্পন্ন হয়।

    অ্যাডার ২ প্রকার। যথাঃ

    • অর্ধ যোগের বর্তনী (Half Adder)
    • পূর্ণ যোগের বর্তনী (Full Adder)
    See less
    • 1
  11. যে অ্যাডার দুটো বিট যোগ করে যোগফল(Sum) হাতে থাকা সংখ্যা বা ক্যারি(Carry) বের করতে পারে তাকে হাফ অ্যাডার বলা হয়।

    যে অ্যাডার দুটো বিট যোগ করে যোগফল(Sum) হাতে থাকা সংখ্যা বা ক্যারি(Carry) বের করতে পারে তাকে হাফ অ্যাডার বলা হয়।

    See less
    • 2